অনন্ত জলিলের সেই টাকা দান করে দিলেন হিরো আলম

0
8

কথা ছিলো অনন্ত জলিলের নতুন একটি ছবিতে কাজ করবেন হিরো আলম। সেই ছবির জন্য ৫০ হাজার টাকা অগ্রিম পারিশ্রমিকও নিয়েছিলেন তিনি। অংশ নিয়েছিলেন ফটোশুটে। কিন্তু বেশ কিছু কারণে হিরো আলমকে ছবিতে নেবেন না বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অনন্ত। সম্প্রতি একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে সেই ঘোষণা দেন তিনি।

সেখানে বলেন হিরো আলমকে পারিশ্রমিক হিসেবে দেয়া ৫০ হাজার টাকা ফেরত চান না তিনি। সেটা তাকে দান করেছেন। এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় আশরাফুল আলম ওরফে হিরো আলম ফেসবুক লাইভে এসে ঘোষণা দেন অনন্ত জলিলের দান করা টাকা নেবেন না তিনি। মানুষের মাঝে তা বিলিয়ে দেবেন। অবশেষে তাই করলেন।

বন্যার পানি ঠেলে বন্যার্তদের মাঝে গিয়ে ত্রাণ বিতরণ করলেন হিরো আলম। বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দিতে পানিতে তলিয়ে যাওয়া এলাকায় নিজে হাজির থেকে আজ ২৭ এপ্রিল ত্রাণ বিতরণ করেন তিনি। এ নিয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বন্যায় অনেক মানুষ খেয়ে না খেয়ে আছে। তাদের জন্য উল্লেখ করার মতো কিছু করবো সেই সামর্থ্য আমার নেই। যেটুকু পেরেছি চেষ্টা করেছি। তবে সমাজের বিত্তবানদের উচিত বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানো। তারা এগিয়ে এলে এই মানুষগুলোর অনেক উপকার হবে।’

প্রায় ১ লাখ টাকার ত্রাণ বিতরণ করেছেন বলে জানান হিরো আলম। যার মধ্যে অনন্ত জলিলের দেয়া সেই ৫০ হাজার টাকাও রয়েছে। একটি লুঙ্গি, একটি শাড়ি ও খাবারসহ মোট এক হাজার টাকা মাথাপিছু ১০০ পরিবারকে দিয়েছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গ আসতেই মুচকি হেসে হিরো আলম বলেন, ‘অনন্ত জলিল ভাই আমাকে তার চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সময় ৫০ হাজার টাকা দিয়েছিলেন। পরে বাদ দেওয়ার পর সেই টাকা আমি ফেরত দেওয়ার চেষ্টা করেছি। কিন্তু উনি নেননি। বিভিন্নভাবে টাকাটা দেওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হওয়ার পর বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি গরীব হতে পারি। কিন্তু পরিশ্রম না করে পাওয়া টাকা আমি ভোগ করি না। সেটাও আবার ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে যখন কেউ আমাকে দান করে।’

বন্যায় অনেকেই কষ্ট পাচ্ছে, ভাবলাম সামান্য চেষ্টা করি। যার জন্য এই পরিকল্পনাই করলাম। সাধ্য হলে আরো সহায়তা করব।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here