অনিরাপদ খাদ্য : জানুয়ারিতেই ১৪ লাখ টাকা জরিমানা

চলতি বছরের প্রথম মাস জানুয়ারিতে ১০ প্রতিষ্ঠানকে ১৪ লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ (বিএফএসএ)। একই সঙ্গে একটি প্রতিষ্ঠান সিলগালা ও একজনকে জেল দিয়েছে সংস্থাটি।

বুধবার বিএফএসএ এ তথ্য জানিয়েছে। অস্বাস্থ্যকর নোংরা রান্না ঘর, মেয়াদহীন ভেজাল পণ্য দিয়ে খাবার তৈরি, রেফ্রিজারেটরে অস্বাস্থ্যকর উপায়ে কাঁচা মাংসের সঙ্গে রান্না করা খাবার রেখে দেয়া ও মেয়াদোত্তীর্ণ খাদ্যপণ্য বিক্রির অপরাধে প্রতিষ্ঠানগুলোকে জেল-জরিমানা করা হয়।

বিএফএসএ-এর তথ্য বলছে, জানুয়ারিতে রাজধানী ঢাকায় ১৭টি ও চট্টগ্রামে ৬টিসহ মোট ২৩টি প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। নিরাপদ খাদ্য আইন পরিপন্থি কর্মকাণ্ড পরিচালনা করায় ১০টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা, একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা, একটিকে সিলগালা ও আরেকটি প্রতিষ্ঠানের বাবুর্চির ১৫ দিনের জেল দিয়েছে বিএফএসএ। পাশাপাশি নিরাপদ খাদ্য আইন পরিপালনে কিছু অসঙ্গতি থাকায় ৭টি প্রতিষ্ঠানকে সতর্ক করা হয়। তিনটি প্রতিষ্ঠানে নিরাপদ খাদ্যবিরোধী কোনো কার্যক্রম পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছে।

বিএফএসএ সূত্র জানায়, মেয়াদোত্তীর্ণ মাংস, দই, হালুয়া, পিঠা বিক্রি করায় ধানমন্ডি ২৭ নম্বর এলাকায় মীনা বাজারকে সতর্ক করা হয় এবং কর্তৃপক্ষের অঙ্গীকার নেয়া হয়।

আর্টিস্টিক ফুড একটি অভিজাত রেস্তোরাঁ। প্রতিষ্ঠানটি লেবেলবিহীন, তারিখবিহীন পাউরুটি, বান দিয়ে খাবার তৈরি করছে। খাবারের পাশে তেলাপোকা ও ইঁদুরের বিষ্ঠা পাওয়া যায়। ফ্রিজে অস্বাস্থ্যকর উপায়ে কাঁচা মাংসের সঙ্গে রান্না করা খাবার রেখে দিতে দেখা যায়। এসব অপরাধে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান বাবুর্চিকে কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

অত্যন্ত নোংরা রান্নাঘর, লেবেলহীন বার্গার বান, রান্না ঘরে খাবারের পাশে প্রচুর তেলাপোকা ঘুরতে দেখা যায় টুর দে সাইক্লিস্ট রেস্তোরাঁয়। এ অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই অপরাধে কফি এক্সপ্রেস নামের আরকেটি রেস্তোরাঁ সিলগালা করা হয়। মেয়াদোত্তীর্ণ দই, গুঁড়া মশলা দিয়ে খবার তৈরি করার অপরাধে লা বাম্বা রেস্তোরাঁকে এক লাখ টাকা জরিমানা বিএফএসএ।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here