আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানে ভয়াবহ যুদ্ধ, বহু হতাহত

0
2

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেই মধ্য এশিয়ার দুই বৈরী প্রতিবেশী আজারবাইজান এবং আর্মেনিয়ার মধ্যে ব্যাপক যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। বিতর্কিত নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে এই সংঘাতের জন্য একে অপরকে দায়ী করছে উভয় দেশ। সংঘাতের কারণে বহু হতাহতের ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

আর্মেনিয়ার অভিযোগ, প্রতিবেশী আজারবাইজান নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চলে স্থানীয় বাসিন্দাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। আন্তর্জাতিকভাবে অঞ্চলটি আজারবাইজানের বলে স্বীকৃত। আর্মেনিয়ার সেনাবাহিনী নাগরনো-কারাবাখসহ প্রধান শহর স্টেপেনকোর্ট নিয়ন্ত্রণ করছে।

আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, রবিবার স্থানীয় সময় ভোর ৪টা ১০ মিনিটের দিকে হামলা চালায় আজারবাইজান। এর জবাবে আর্মেনিয়ার বাহিনী প্রতিপক্ষের দুটি হেলিকপ্টার এবং তিনটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে।
তিনি আরও বলেন, আর্মেনিয়ার আক্রমণ প্রতিহত করে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতের লক্ষ্যে তারা পাল্টা আক্রমণ চালিয়েছে। এ সময় তারা ট্যাংক, আর্টিলারি মিসাইল, যুদ্ধবিমান এবং ড্রোন ব্যবহার করেছে। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আজারবাইজানের হেলিকপ্টার ভূপাতিত করা হলেও ক্রুরা জীবিত আছেন।

আজারবাইজানের প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র হিকমেত হাজিয়েভ এক বিবৃতিতে বলেন, হতাহতদের মধ্যে সাধারণ মানুষ এবং সামরিক বাহিনীর সদস্যরাও রয়েছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোও জানিয়েছে, ওই অঞ্চলে সাধারণ মানুষ হতাহত হয়েছে।

এদিকে, আর্মেনিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র বিবৃতিতে জানান, নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চলে আর্মিনিয়ার এক নারী এবং এক শিশু নিহত হয়েছে।

নাগরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে আর্মেনিয়া-আজারবাইজানের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে সংঘাত চলছে। চিরশত্রু দুই দেশের মধ্যকার নতুন সংঘাত আরও ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। জুলাইতে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া সীমান্তে ব্যাপক সংঘাত হয়। এতে উভয়পক্ষের ১৭ সেনা নিহত হন।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here