করের সাড়ে ৩৭ লাখ টাকা খেয়েছেন ৪ পৌর কর্মকর্তা

বগুড়া পৌরসভায় কর বিভাগের সাড়ে ৩৭ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চার কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মঙ্গলবার (১৭ নভেম্বর) দুদকের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে নিজ দফতরে এ মামলা করেন। নাগরিকদের কাছ থেকে কর হিসেবে আদায় করা টাকা জমা না দেয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়।

তারা হলেন- বগুড়া পৌরসভার ভারপ্রাপ্ত কর আদায়কারী এ কে এম আকিল আহম্মেদ মোমিন, চুক্তি সহকারী কর আদায়কারী মশিউর রহমান, একই পদে কর্মরত অপর দুই কর্মচারী মো. আলমগীর রহমান ও মাসুদ সরকার কনক। তাদের বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ১ জুলাই থেকে ২০১৮ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত তিন বছরে ৩৭ লাখ ৬১ হাজার ১৯৮ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে।

দুদক কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুদকের অনুসন্ধানের প্রাক্কালে পৌরসভা কর্তৃপক্ষ ওই চার কর্মকর্তা-কর্মচারীকে কয়েক মাস আগে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

মামলার বর্ণনা অনুযায়ী, আসামিদের মধ্যে এ কে এম আকিল আহম্মেদ মোমিন সাধারণ মানুষের কাছ থেকে আদায়ের ১৮ লাখ ৩৯ হাজার ২১০ টাকা পৌরসভার সংশ্লিষ্ট খাতে জমা না করে আত্মসাৎ করেছেন। অপর তিন আসামির মধ্যে মশিউর রহমান ১০ লাখ ২০ হাজার ৫০০, আলমগীর রহমান পাঁচ লাখ ৫৮ হাজার ৬৪৯ এবং মাসুদ সরকার কনক তিন লাখ ৪২ হাজার ৮৩৮ টাকা আত্মসাৎ করেন।

দুদক বগুড়ার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ১৯৪৭ সালেরর দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here