করোনা আক্রান্ত রোনালদোর জন্য মেসির বার্তা

0
5

আগামী বুধবার (২৮ অক্টোবর) উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিলো দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী লিওনেল মেসি ও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর। টুর্নামেন্টের ‘জি’ গ্রুপে রয়েছে মেসির বার্সেলোনা ও রোনালদোর জুভেন্টাস। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বুধবার মুখোমুখি হবে এ দুই দল।

বার্সা ও জুভের ম্যাচটি নিয়ে কোনো সংশয় নেই, তবে অনিশ্চয়তায় পড়ে গেছে মেসি-রোনালদোর মুখোমুখি লড়াই। রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়ার পর এ ম্যাচ দিয়েই প্রথমবারের মতো একে অপরের বিপক্ষে মাঠে নামতেন এ দুই বিশ্বতারকা। কিন্তু বাঁধ সাধল করোনাভাইরাস।

গত ১৩ অক্টোবর প্রথমবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন জুভেন্টাসের পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচের তখনও দুই সপ্তাহ বাকি থাকায় তার খেলা নিয়ে তেমন সংশয় দেখা যায়নি তেমন। কিন্তু বৃহস্পতিবার (২২ অক্টোবর) দ্বিতীয় করোনা পরীক্ষায়ও পজিটিভ এসেছে রোনালদোর নমুনার ফলাফল।

যার ফলে এখন পুরোপুরি অনিশ্চয়তায় বুধবারের ম্যাচে রোনালদোর অংশগ্রহণ। জুভেন্টাসের পক্ষ থেকে উয়েফাকে জানানো হয়েছে, রোনালদোর সবশেষ অবস্থা। ম্যাচের ২৪ ঘণ্টা আগে করা করোনা পরীক্ষায় যদি নেগেটিভ হন রোনালদো, তাহলে মাঠে নামতে কোনো বাধা থাকবে না তার। আর এটিরই অপেক্ষায় রয়েছেন রোনালদোর প্রতিদ্বন্দ্বী মেসি। তিনি আশা করছেন, শিগগিরই সুস্থ হয়ে যাবেন রোনালদো এবং খেলবেন বার্সেলোনার বিপক্ষে ম্যাচে। কেননা বিশ্ব ফুটবলে মেসি-রোনালদোর লড়াইটা বরাবরই স্পেশাল। যেটা নিয়মিতই দেখা যেতো স্প্যানিশ লা লিগায়।

ইংল্যান্ডভিত্তিক ব্রডকাস্টিং প্রতিষ্ঠান ডিএজেএনকে মেসি বলেছেন, ‘অবশ্যই! ক্রিশ্চিয়ানো যখন রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে খেলতো, তখন ম্যাচগুলো (এল ক্লাসিকো) স্পেশাল ছিল। তাদের বিপক্ষে ম্যাচ বরাবরই স্পেশাল। তবে সাথে ক্রিশ্চিয়ানো থাকলে ম্যাচের পরিবেশ-পরিস্থিতি পুরোপুরি বদলে যায়।’

তবে এখন যে আর এল ক্লাসিকোতে ক্রিশ্চিয়ানর মুখোমুখি হওয়া সম্ভব নয়, এই বাস্তবতা মেনে নিয়েছেন মেসিও। তাই তিনি চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচটিতে চির প্রতিদ্বন্দ্বীর বিপক্ষে মাঠে নামতে মুখিয়ে রয়েছেন। আশা করছেন, নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই সেরে উঠবেন রোনালদো।

মেসির ভাষ্য, ‘এটা (এল ক্লাসিকোর লড়াই) এখন অতীত। আমরা সবাই এখন সামনের দিনের কথা ভাবি, নতুন চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত হই। বুধবার তেমনই একটা চ্যালেঞ্জের সামনে পড়া লাগতে পারে। আমরা আশা করছি শিগগিরই সুস্থ হয়ে উঠবে রোনালদো এবং সেই ম্যাচে খেলবে।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘ আমাদের দল দুইটিও (রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনা) অনেক জনপ্রিয় এবং শক্তিশালী ছিল। ক্রিশ্চিয়ানোর সঙ্গে আমার যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছিল এবং এখনও আছে; সেটা আজীবনই থাকবে। দুজনের এই লড়াই অনেকদিন ধরেই চলছে। এত উচ্চপর্যায়ে এত লম্বা সময় ধরে এই প্রতিদ্বন্দ্বিতা চালিয়ে নেয়া সহজ বিষয় নয়।’

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপপর্বের ম্যাচে দারুণ এক লড়াই উপহার দেয়ার কথা জানিয়ে মেসি বলেন, ‘রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা এবং বিশ্বের সব ফুটবল ভক্তরাই দারুণ সব ম্যাচ উপভোগ করেছে। আমরা আশা করছি বুধবারও তাদের তেমনই কিছু উপহার দিতে পারব।’

বুধবার ক্রিশ্চিয়ানোর জুভেন্টাসের মুখোমুখি হওয়ার আগে আরও একটি কঠিন ম্যাচ অপেক্ষা করছে মেসির বার্সেলোনার সামনে। শনিবার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় নিজেদের ঘরের মাঠে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদকে মৌসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো ম্যাচে স্বাগত জানাবে বার্সেলোনা।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here