করোনা মোকাবিলায় নিজের হোটেলগুলোকে হাসপাতাল বানাচ্ছেন রোনালদো!

0
1

মহামারি করোনাভাইরাস মোকাবিলায় অনন্য নজির স্থাপন করতে চলেছেন বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা তারকা, পর্তুগালের সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। নিজের দুটি বিলাসবহুল হোটেলকে তিনি ছেড়ে দিচ্ছেন হাসপাতাল হিসেবে ব্যবহারের জন্য।

স্পেনের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক মার্কার এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, আগামীকাল সোমবার থেকেই পর্তুগালে রোনালদোর দুটি হোটেল ব্যবহৃত হবে হাসপাতাল হিসেবে। যাতে পর্তুগালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মানুষরা সেখান থেকে বিনামূল্যে সেবা নিতে পারেন।

খবরে জানানো হয়েছে, আগামী সপ্তাহ (ইউরোপিয়ান সপ্তাহ শুরু হয় সোমবার থেকে) থেকেই লিসবন এবং মাদেইরাতে রোনালদোর যে দুটি পেস্তানা হোটেল রয়েছে, সেগুলোকে অস্থায়ী হাসপাতালে পরিণত করা হবে।

যেখানে রোগীদের বিনামূল্যে সেবা প্রদান করা হবে। এ হাসপাতালের যাবতীয় খরচ বহন করবেন রোনালদো। অর্থাৎ হাসপাতালে রোগীদের পেছনে ব্যয় হওয়া অর্থ ছাড়াও এখানে যারা কাজ করবেন তাদের পারিশ্রমিক এবং অন্যান্য সুবিধাদির বিষয়ও রোনালদোই দেখবেন।

বর্তমানে ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে খেলেন রোনালদো। কিন্তু দেশটিতে করোনাভাইরাস অতিমাত্রায় ছড়িয়ে পড়ায় স্থগিত করা হয়েছে ঘরোয়া ফুটবলের লিগ সিরি আ। রোনালদোর সতীর্থ ড্যানিয়েল রুগানি আক্রান্ত হয়েছেন করোনায়। ফলে নিজ জন্মস্থান মাদেইরাতে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তিনি।

নিজে পরিবার-পরিজন নিয়ে নিরাপদে আছেন ঠিকই কিন্তু তার দেশের মানুষ ঠিক আছে তো?- এ চিন্তা থেকেই দুই হোটেলকে হাসপাতাল বানানোর পরিকল্পনা নিয়েছেন রোনালদো। লিসবন এবং মাদেইরার এ হোটেল দুটি পর্তুগালের অন্যতম খরুচে ও বিলাসবহুল দুই হোটেল।

এর আগে শনিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করোনার ব্যাপারে সতর্কতামূলক বার্তা দিয়েছিলেন রোনালদো। ইন্সটাগ্রামে তিনি লিখেছিলেন, ‘বিশ্ব এখন কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এ সময়ে আমাদের সকলের মনোযোগী এবং যত্নবান হওয়া প্রয়োজন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং প্রশাসনের নির্দেশনা মেনে আমাদের পরবর্তী পদক্ষেপ নেয়া উচিৎ।’

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here