কোহলিকে নিচে নামালেন স্মিথ, নিশ্চিন্ত উইলিয়ামসন

0
4

চলতি বছর তথা দশকের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে আইসিসি টেস্ট র‍্যাংকিংয়ে নিজের শীর্ষস্থান আরও মজবুত করে ফেলেছেন নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। আইসিসি টেস্ট ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ে তার রেটিং পয়েন্ট ৯১৯, যা যেকোনো কিউই ক্রিকেটারদের মধ্যে সর্বোচ্চ।

তবে উইলিয়ামসনের ঠিক নিচের স্থানেই এসেছে পরিবর্তন। পিতৃত্বকালীন ছুটিতে থাকা বিরাট কোহলিকে দুই নম্বর থেকে তিনে পাঠিয়ে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সেরা ব্যাটসম্যান স্টিভেন স্মিথ। তিনি উঠে এসেছেন দুই নম্বরে। সদ্য সমাপ্ত সিডনি টেস্টের দুই ইনিংসে যথাক্রমে সেঞ্চুরি ও হাফসেঞ্চুরির পুরস্কারস্বরুপ দুই নম্বর স্থানটি পেয়েছেন স্মিথ।

সোমবার শেষ হওয়া সিডনি টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১৩১ রানের পর দ্বিতীয় ইনিংসে স্মিথ খেলেন ৮১ রানের ইনিংস। যার সুবাদে ড্র হওয়া ম্যাচটিতে তাকেই দেয়া হয় ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার। এর একদিন পর পুরস্কার পেলেন আইসিসি থেকেও। পুনরায় তিনি ঢুকেছেন ৯০০ রেটিংয়ের ক্লাবে। ঠিক ৯০০ রেটিং নিয়ে বসেছেন র‍্যাংকিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে। কোহলির নামে পাশে রয়েছে ৮৭০ রেটিং।

স্মিথ-কোহলির র‍্যাংকিং অদল-বদলের দিন নিজ দেশের রেকর্ডটি আরও বাড়িয়েছেন উইলিয়ামসন। আগের রেকর্ডটিও তারই ছিল। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯১৫ রেটিংয়ের রেকর্ড গড়েন তিনি। তখন ভেঙেছিলেন ১৯৮৫ সালে করা স্যার রিচার্ড হ্যাডলির ৯০৯ রেটিং পয়েন্টের রেকর্ড।

আর এবার তিনি সেই রেটিংকে বাড়িয়ে নিয়ে গেছেন ৯১৯-এ। মূলত পরপর তিন ম্যাচে ডাবল সেঞ্চুরি, সেঞ্চুরি ও ডাবল সেঞ্চুরির সুবাদেই নিউজিল্যান্ডের খেলোয়াড়দের মধ্যে সর্বোচ্চ রেটিংয়ের রেকর্ড নতুন করে লিখেছেন। বর্তমান ব্যাটিং র‍্যাংকিংয়ের শীর্ষ দশে নিউজিল্যান্ডের অন্য ব্যাটসম্যান হেনরি নিকলস। তিনি তিন ধাপ এগিয়ে ৭৪৭ রেটিংয়ে অবস্থান করছেন নয় নম্বরে।

এদিকে ক্যারিয়ার সর্বোচ্চ রেটিংয়ে কোহলির খুব কাছে চলে এসেছেন অস্ট্রেলিয়ার আরেক ব্যাটসম্যান মার্নাস লাবুশেন। সিডনি টেস্টে ৯১ ও ৭৩ রানের দুইটি ইনিংস খেলা লাবুশেনের বর্তমান রেটিং ৮৬৬। শেষ টেস্টে ভালো করতে পারলে কোহলিকে আরও একধাপ নিচে নামিয়ে তিনে উঠে যাবেন লাবুশেন।

এছাড়া সিডনি টেস্টের পর র‍্যাংকিংয়ে উন্নতি হয়েছে ভারতের ব্যাটসম্যানদেরও। ম্যাচে জোড়া ফিফটি হাঁকিয়ে দুই ধাপ এগিয়েছেন চেতেশ্বর পুজারা। তিনি বর্তমানে ৭৫৩ রেটিং নিয়ে অবস্থান করছেন আটে। অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানের অবস্থান সপ্তম। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রিশাভ পান্ত ১৯ ধাপ এগিয়ে চলে এসেছেন ২৬ নম্বরে।

বোলারদের মধ্যে তিন ধাপ এগিয়ে পাঁচে উঠে গেছেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার জশ হ্যাজলউড। উল্টোদিকে তিন ধাপ পিছিয়ে আটে নেমে গেছেন মিচেল স্টার্ক। যথারীতি শীর্ষেই অবস্থান করছেন প্যাট কামিনস। র‍্যাংকিংয়ের পরের তিনটি নাম স্টুয়ার্ড ব্রড, নেইল ওয়াগনার ও টিম সাউদি।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here