জালিয়াতির শঙ্কায় নির্বাচন পেছানোর ইঙ্গিত ট্রাম্পের

0
3

নভেম্বরের আসন্ন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের পর বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যে ফল নেবেন না, এমন গুঞ্জন বেশ কিছুদিন ধরেই শোনা যাচ্ছে। এবার মেইল-ইন ভোটিং ব্যবস্থার ফলে জালিয়াতি হতে পারে বলে অভিযোগ তুলে আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন ট্রাম্প। খবর বিবিসির।

বিবিসির প্রতিবেদনে এই খবর জানিয়ে বলা হচ্ছে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভোট প্রদানের ‘যথাযথ, সুরক্ষিত ও নিরাপদ’ পরিবেশ সৃষ্টি না হওয়া পর্যন্ত নির্বাচন স্থগিত রাখার ইঙ্গিত দিয়েছেন। তবে ট্রাম্পের অভিযোগের পক্ষে সমর্থনযোগ্য প্রমাণ খুবই কম। তিনি অনেকদিন ধরেই মেইল-ইন ভোটিংয়ের বিরোধিতা করে আসছেন।

দীর্ঘদিন ধরেই প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প অভিযোগ তুলে আসছেন যে, মেইল-ইন পদ্ধতিতে ভোট হলে তাতে জালিয়াতি হতে পারে। তবে করোনায় শীর্ষ আক্রান্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্রের বেশিরভাগ অঙ্গরাজ্য সরকার ঊর্ধ্বমুখী করোনা সংক্রমণের শঙ্কায় স্বাস্থ্যবিধির কথাগুলো মাথায় রেখে মেইলের মাধ্যমে ভোটের আয়োজন করতে চায়।

ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বলেছেন, ‘সর্বজনীন মেইল-ইন ভোটিং নভেম্বরের নির্বাচনকে ইতিহাসের সবচেয়ে ভুল ও প্রতারণামূলক নির্বাচণে পরিণত করবে; যা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য মারাত্মক বিব্রতকর।’ ইতোমধ্যে ক্যালিফোর্নিয়া, উটাহ, হাওয়াই, কলোরোডা, ওরেগন ও ওয়াশিংটন রাজ্য সবার ভোট মেইলে নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here