টিকিট সঙ্কটে হাজারও দুবাই প্রবাসী

সিলেট বিভাগের সহস্রাধিক দুবাই প্রবাসী বিমানের টিকিট সঙ্কটের কারণে বিপাকে পড়েছেন। টিকিট না পাওয়ায় তারা চাকরি হারানোর শঙ্কায় রয়েছেন। বুধবার (১২ আগস্ট) বাংলাদেশ বিমানের সিলেট অফিসে গিয়ে টিকিট বুকিং করতে না পেরে আম্বরখানা-এয়ারপোর্ট সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেন সিলেটে আটকা পড়া দুবাই প্রবাসীরা। ঘণ্টাখানেক পর পুলিশ এসে অবরোধ তুলে দিলেও দুপুর ১টা পর্যন্ত প্রায় পাঁচ শতাধিক দুবাই প্রবাসী অফিসের সামনে বিক্ষোভ করেন।

জানা গেছে, করোনা পরিস্থিতিতে দীর্ঘদিন সিলেটে আটকা পড়া দুবাই প্রবাসীরা ফ্লাইট খোলার পর থেকে টিকিট বুকিং দিতে সিলেট নগরের মজুমদারি এলাকায় বিমান অফিসে ভিড় জমাতে থাকেন। আজ বুধবারও সিলেট বিভাগের বিভিন্ন এলাকার প্রায় পাঁচ শতাধিক দুবাই প্রবাসী টিকিট নিশ্চিত করতে বিমান অফিসে যান। কিন্তু আগামী ৩০ আগস্ট পর্যন্ত দুবাইগামী বাংলাদেশ বিমানের কোনো ফ্লাইটেরই আসন খালি নেই। এ খবর পেয়ে তারা বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং বেলা সাড়ে ১১টার দিকে সিলেট আম্বরখামনা-এয়ারপোর্ট সড়ক অবরোধ করেন।

ঘণ্টাখানেক পর দুপুর সাড়ে ১২টায় এসএমপির এয়ারপোর্ট থানা পুলিশ এসে অবরোধ তুলে দিলেও তারা বিমান অফিসের অভ্যন্তরে বিক্ষোভ করেন।

আব্দুর রহমান নামের এক দুবাই প্রবাসী বলেন, এক মাসের ছুটি নিয়ে এসে আজ ৬ মাস ধরে দেশে আছি। বিমানের ফ্লাইট চালু হওয়ার পর থেকে দ্রুত ফিরে কাজে যোগ দেয়ার জন্য বলা হচ্ছে। বিমান অফিসে কয়েকদিন পর পর অন্তত পাঁচ বার এসেছি টিকিট নিশ্চিত করতে। কিন্তু সিট খালি নেই বলে ফেরত দেয়া হচ্ছে। এ অবস্থায় চাকরি হারানোর শঙ্কায় আছি। অথচ ট্রাভেল ব্যবসায়ীরা ঘুষ দিয়ে তাদের যাত্রীদের টিকিট নিশ্চিত করছেন। টিকিট সঙ্কট কাটাতে বিশেষ ফ্লাইট চালুর দাবি জানান তিনি।

এ ব্যাপারে সিলেট বিমান অফিসের জেলা ব্যবস্থাপক মো. শাহনেওয়াজ মজুমদার বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট পরিচালনার কারণে বাংলাদেশে বিমানের টিকিট সঙ্কট দেখা দিয়েছে। এ কারণে সিলেটে আটকা পড়া দুবাই প্রবাসীরা অফিসের সামনে জড়ো হয়েছেন। আগামী ৩০ আগস্ট পর্যন্ত বাংলাদেশ বিমানের কোনো ফ্লাইটে আসন খালি নেই। তবে তাদের কাগজপত্রের ফটোকপি আমরা রেখেছি, যখনই টিকিট অ্যাভেলেবল তাদেরকে মেসেজ দিয়ে জানিয়ে দেয়া হবে।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here