দুই স্কুলছাত্রসহ সড়কে ঝরল ৯ প্রাণ

বঙ্গবন্ধু সেতুতে তিন দুর্ঘটনায় ২৭ কিলোমিটার জুড়ে যানজট

গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে দুই জন স্কুলছাত্র রয়েছে। প্রতিনিধি ও সংবাদদাতাদের পাঠানো খবর—

কাপাসিয়া (গাজীপুর): কাপাসিয়ায় বুধবার বেপরোয়া গতির একটি কাভার্ড ভ্যানের সঙ্গে সংঘর্ষে সিএনজি চালিত অটোরিকশা উলটে ঘটনাস্থলে একজন নিহত ও চার জন আহত হয়েছেন। খোদাদিয়ার সৈয়দ বাড়ি মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত রতন (৪৮) চাঁদপুর ইউনিয়নের বড়পুশিয়া গ্রামের মৃত রমেশের ছেলে।

সাতকানিয়া (চট্টগ্রাম): বুধবার সাতকানিয়ায় বাজালিয়া-শীলঘাটা সড়কের নাথপাড়ায় ক্লাস শেষে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় রবিউল হোসেন (১৪) নামে পুরানগড় উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র নিহত হয়েছে। সে উপজেলার পুরানগড় ইউনিয়নের বৈতরণী এলাকার মাওলানা সেলিম উদ্দিনের ছেলে।

লক্ষ্মীপুর :লক্ষ্মীপুরে রাস্তা পারাপারের সময় পিকআপভ্যান চাপায় নিশান আহমেদ ফারুক (৯) নামে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। গতকাল সদর উপজেলার মান্দারী পূর্ববাজার সংলগ্ন ঢাকা-রায়পুর আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ স্থানীয়রা প্রায় ঘণ্টাব্যাপী সড়ক অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশ ঘাতক চালক ও গাড়ি আটকের আশ্বাস দিলে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়। ফারুক উপজেলার মটবী গ্রামের প্রবাসী আবু ছিদ্দিকের ছেলে। সে উত্তর মান্দারী সরকারি প্রাথমিক স্কুলের তৃতীয় শ্রেণির ছাত্র।

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) : বুধবার গোমস্তাপুরে একটি ট্রাককে (রাজ মেট্রো-ট-১১-০২০৯) ওভারটেক করার সময় মোটরসাইকেলের সামনে থেকে আসা পাওয়ার টিলারকে সাইড দিতে গিয়ে ট্রাকের নিচে পড়ে যায়। এ ঘটনায় মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী নিহত হয়েছেন। এরা হলেন—নওগাঁর পোরশা উপজেলার জুয়েল পাইলা গ্রামের আইউব আলীর ছেলে হাবিবুর (৩৮) ও সাইফুল ইসলামের ছেলে মোজাহার (৩৫)।

ভাঙ্গা (ফরিদপুর): ভাঙ্গা-মাওয়া বিশ্বরোডের মালিগ্রাম বাসস্ট্যান্ডে মঙ্গলবার দিবাগত গভীর রাতে বাসের ধাক্কায় মিন্টু সেক (৩০) নামে এক মাইক্রোবাস চালক নিহত হয়েছেন।

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ): ঈশ্বরগঞ্জে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের দত্তপাড়া রহমতগঞ্জে ট্রাক্টরের সঙ্গে সংঘর্ষে ইয়াছিন (৩০) নামে এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন।

ভুঞাপুর (টাঙ্গাইল): বঙ্গবন্ধু সেতুতে পৃথক দুর্ঘটনায় দুই জন নিহত হয়েছেন। বুধবার সকাল ৭টার দিকে টোলপ্লাজা সংলগ্ন দুই বাসের সংঘর্ষে এক জন এবং দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকা-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের কালিহাতীর জোকারচর এলাকায় বাস-ট্রাকের সংঘর্ষে এক জন নিহত হন। এরমধ্যে এক জন হেলপার ইমন হোসেন। তিনি ভুঞাপুর উপজেলার কুকাদাইর গ্রামের শাহাদত হোসেনের ছেলে। পুলিশ জানায়, নিহত দুই জনই বাসের হেলপার।

এছাড়াও সকালে বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর ১৭ নম্বর পিলারের কাছে ঢাকাগামী লেনে দুইটি ট্রাকের সংঘর্ষ হয়। পৃথক তিনটি ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হন। এসব দুর্ঘটনার ফলে বঙ্গবন্ধু সেতুর উভয়পাড়সহ মহাসড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে বঙ্গবন্ধু সেতুপূর্ব থেকে টাঙ্গাইলের রাবনা বাইপাস পর্যন্ত প্রায় ২৭ কিলোমিটার সড়কে যানজট দেখা দেয়।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here