পায়ে পচনধরা ব্যক্তির চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ডা. ফেরদৌস

0
10

আমার কাগজ প্রতিবেদক :
কুমিল্লার দেবিদ্বারে পায়ে পচন ধরা এক ব্যক্তির চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ডা. ফেরদৌস খন্দকার। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ কথা জানিয়েছেন রোগীর ভাতিজা মো.সোহেল রানা।

তিনি জানান, আমেরিকা প্রবাসী ডা. ফেরদৌস খন্দকার মানবিক কারণে চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন। উনি বলেছেন, যতক্ষণ সুস্থ না হবে ততক্ষণ উনি পাশে থাকবেন। তার সাথে যোগাযোগ রাখছি এবং সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর দিচ্ছি।

এর আগে গত বুধবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই ব্যক্তির বিকৃত পায়ের ছবি দেখে ডা. ফেরদৌস খন্দকার এ সিদ্ধান্ত নেন বলে জানা গেছে। পরে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই ব্যক্তিকে ডা. বাসুদেব নামক এক ব্যক্তি নিজ খরচে কুমিল্লার একটি হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন। বর্তমানে তিনি ওই হাসপাতালে চিকিৎসক মো. জাকির হোসেনের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের বারুর গ্রামের মো. আবু বাহার (আবু বেপারী) দীর্ঘ আট মাস ধরে ‘গ্যাংরি’ রোগে আক্রান্ত। এ রোগে তার ডান পা হাটু পর্যন্ত পচন ধরেছে, বাম পা’তেও ক্ষত দেখা দিয়েছে। চিকিৎসকরা বলেছেন, তার বাম পা পচন ধরা আগে ক্ষত পা’টি কেটে ফেলতে হবে, না হয় ওই পা’টিও পচন ধরার আশংকা রয়েছে ।

যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী ডা. ফেরদৌস জানান, ওই ব্যক্তির এক পায়ের মাংসে পচন ধরেছে, তাঁর শরীর অনেক দুর্বল। প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া শুরু হয়েছে, তার বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। তিনি আরও বলেন, একজন মানুষ হিসেবে আরেকজন বিপন্ন মানুষকে সাহায্য করাই ধর্ম। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পায়ে পচন ধরা ব্যক্তিটির ছবি দেখে দায়িত্বানুভূতি থেকে মনে হলো তার পাশে দাঁড়ানো উচিত। আমি চিকিৎসকের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করছি। তার চিকিৎসার সকল খরচ আমি বহন করবো।

 

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here