পিএসএলে ভিন্ন তিন দলে বাংলাদেশের তিন তারকা

0
11

র্স্পোটস ডেস্ক :

পাকিস্তান সুপার লিগের বদলি খেলোয়াড়ের ড্রাফটে দল পেয়েছেন বাংলাদেশের সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও লিটন দাস। তারা তিনজন খেলবেন ভিন্ন তিন দলের হয়ে। অন্যদিকে অবিক্রিত রয়ে গেছেন তামিম ইকবাল, তাসকিন আহমেদ ও সাব্বির রহমান।

গত ফেব্রুয়ারির শেষদিকে শুরু হয়েছিল পিএসএলের ষষ্ঠ আসর। কিন্তু করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে ১৪টি ম্যাচ হওয়ার পর ৪ মার্চ স্থগিত করা হয় এ টুর্নামেন্ট। পরে ঠিক করা হয়, করাচিতে আগামী ১ জুন থেকে হবে আসরের বাকি ২০টি ম্যাচ।

কিন্তু এ সময় আবার পাওয়া যাবে না অনেক খেলোয়াড়কে। তাই মঙ্গলবার প্লেয়ার্স ড্রাফটের মাধ্যমে সব দলগুলোকে নতুন খেলোয়াড় নেয়ার সুযোগ করে দিয়েছেন আয়োজকরা। যেখানে ছিল ১৩২ জন বিদেশি খেলোয়াড়ের নাম। বাংলাদেশ থেকে ছিলেন ৬ জন।

এর মধ্যে লাহোর কালান্দার্সে সাকিব আল হাসান, মুলতান সুলতানসে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ এবং করাচি কিংসের হয়ে খেলার সুযোগ পেয়েছেন লিটন দাস। এ নিয়ে দেশের বাইরে দ্বিতীয়বার কোনো টুর্নামেন্টে দল পেলেন লিটন। ২০১৯ সালে জ্যামাইকা তালাওয়াসের হয়ে সিপিএল খেলেছিলেন তিনি।

পিএসএলের এই দ্বিতীয় পর্বে যেসব খেলোয়াড়, সাপোর্ট স্টাফ এবং টিম অফিসিয়ালরা খেলবেন, তাদের সবাইকে করাচিতে একটি হোটেলের আলাদা আলাদা কক্ষে সাতদিনের কঠোর কোয়ারেন্টাইন করতে হবে। যা শুরু হবে ২২ মে থেকে। পরে তিনদিনের অনুশীলন করে মাঠে নামবেন তারা।

তবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের জন্য রয়েছে একটি বাঁধা! জুনে জিম্বাবুয়ে সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের। যেখানে স্বাভাবিকভাবেই দলে থাকার কথা সাকিব, মাহমুদউল্লাহ, লিটনদের। তাই পিএসএলের কয়টি ম্যাচ খেলতে পারবেন তারা, তা নিয়ে একটা সংশয় থেকেই যায়।

বদলি খেলোয়াড় ড্রাফট থেকে দল পেলেন যারা

ইসলামাবাদ ইউনাইটেড – উসমান খাঁজা, জানেমান মালান

লাহোর কালান্দার্স – সাকিব আল হাসান, জেমস ফকনার, জো বার্ন্স, ক্যালাম ফার্গুসন, সেকুগে প্রসন্ন

পেশোয়ার জালমি – ফাবিয়ান অ্যালেন, রভম্যান পাওয়েল, ফিদেল এডওয়ার্ডস

করাচি কিংস – লিটন দাস, মার্টিন গাপটিল, নাজিবুল্লাহ জাদরান, থিসারা পেরেরা

মুলতান সুলতানস – মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রহমানউল্লাহ গুরবাজ, জর্জ লিনডে, ওবেদ ম্যাকয়

কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরস – আন্দ্রে রাসেল

 

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here