প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর হত্যায় অভিযুক্ত যুবক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

ফরিদপুরে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় অভিযুক্ত ইয়াসিন মোল্লা (২২) নামে এক যুবক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। রোববার (১৫ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ২টার দিকে শহরের রথখোলা লঞ্চঘাট জোড়া ব্রিজের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইয়াসিন মোল্লা শহরের ওয়ারলেসপাড়ার মনি মোল্লার ছেলে। তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফরিদপুর কোতোয়ালী থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) বেলাল হোসাইন জানান, রাজেন্দ্র কলেজের মেলার মাঠের সিসিটিভি ফুটেজ থেকে ছবি সংগ্রহ করে ইয়াসিনকে চিহ্নিত করা হয়। এরপর স্থানীয়দের সহায়তায় তাকে গত রাতে আটক করে অভিযানে নামলে তার সহযোগী ও পুলিশের মধ্যে পাল্টাপাল্টি গোলাগুলি হয়। এ সময় ইয়াসিন নিহত হয়। এই ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়।

পরে সেখান থেকে ইয়াসিনকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার সরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) বিকেলে ১৪ বছরের প্রতিবন্ধী কিশোরী ফাতেমাকে রাজেন্দ্র কলেজের মেলার মাঠ থেকে তুলে নিয়ে যায় ইয়াসিন নামে ওই যুবক। পরের দিন পাশের টেলিগ্রাম অফিসের পাশ থেকে তার বিবস্ত্র মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here