ব্রাজিলিয়ান ভিনিসিয়াসের নৈপুণ্যে লিভারপুলকে হারাল রিয়াল

0
3

র্স্পোটস ডেস্ক :
২০ বছর বয়সী ভিনিসিয়াস জুনিয়র জ্বলে উঠলেন। তার দুর্দান্ত নৈপুণ্যে রিয়াল মাদ্রিদও পেল দারুণ এক জয়। মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালের প্রথম লেগে লিভারপুলকে ৩-১ গোলে হারিয়েছে ঘরের মাঠের রিয়াল।

ব্রাজিলিয়ান তারকা ভিনিসিয়াস ম্যাচের ২৭ এবং ৬৫ মিনিটে জোড়া গোল করেন। মাঝে একটি গোল করেন মার্কো আসেনসিও। লিভারপুলের একমাত্র গোলটি আসে মোহাম্মদ সালাহর পা থেকে।

ম্যাচের আধা ঘণ্টা না হতেই এগিয়ে যায় রিয়াল। ২৭তম মিনিটে ভিনিসিয়াসের দিকে উঁচু করে বল বাড়িয়েছিলেন টনি ক্রুস। ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড সেটি বুক দিয়ে নামিয়ে ডি বক্সে ঢুকেই নিচু শটে করেন দারুণ এক গোল।

এটি সাবেক ফ্ল্যামেঙ্গো ফরোয়ার্ডের চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নকআউটে প্রথম গোল। ২০ বছর ২৬৮ দিন বয়সে গোল করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নকআউটে রিয়াল মাদ্রিদের দ্বিতীয় কনিষ্ঠতম গোলস্কোরারও হয়েছেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। সবচেয়ে কম বয়সী ছিলেন রাউল গঞ্জালেস, ১৯৯৬ সালে করেছিলেন গোলটি।

ব্যবধান দ্বিগুণ করতেও সময় লাগেনি রিয়ালের। এবার লিভারপুল রাইট-ব্যাক ট্রেন্ট অ্যালেক্সান্ডার-আরনল্ডের ভুল। হেডে বল ক্লিয়ার করতে গিয়ে নিজেদের ডি-বক্সেই ফেলে দেন ট্রেন্ট-অ্যালেকজ্যান্ডার। সুযোগ বুঝে ছুটে গিয়ে প্রথম টোকায় আগুয়ান গোলরক্ষকের ওপর দিয়ে বল নিয়ে দ্বিতীয় টোকায় সেটি জালে জড়ান আসেনসিও।

প্রথমার্ধে অগোছালো ফুটবল খেলা লিভারপুল দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের অনেকটা গুছিয়ে নেয়। ৫১ মিনিটে ব্যবধানও কমায় তারা। দিয়োগো জটার শট মদ্রিচের পায়ে লেগে যায় সালাহর কাছে। মিশরীয় ফরোয়ার্ডের দুর্বল শট হাতে লাগালেও গোল আটকাতে পারেননি থিবো কোর্তোয়া।

তবে ভিনিসিয়াস-জাদু তখনও বাকি। ৬৫ মিনিটে আরও এক গোল আসে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের পা থেকে। ডান দিক থেকে লুকা মদ্রিচের পাস পেনাল্টি স্পটের কাছে পেয়ে প্লেসিং শটে নিজের দ্বিতীয় গোলটি করেন তরুণ এই ফরোয়ার্ড। শেষপর্যন্ত ৩-১ গোলের সহজ জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে জিনেদিন জিদানের দল।

আগামী ১৪ এপ্রিল অ্যানফিল্ডে ফিরতিপর্বের লড়াই। প্রথম লেগে বড় ব্যবধানে হারায় ঘরের মাঠে কঠিন পরীক্ষাই দিতে হবে লিভারপুলকে। অন্যদিকে রিয়ালের জন্য সেমিফাইনাল অনেকটাই কাছে চলে আসলো মঙ্গলবারের জয়ে।

 

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here