রংপুরে ইউএনওদের নিরাপত্তায় থাকবেন ১০ সশস্ত্র আনসার

0
6

রংপুর প্রতিনিধি :

রংপুর বিভাগের আট জেলার ৫৮টি উপজেলায় কর্মরত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) নিরাপত্তায় ১০ জন করে সশস্ত্র অঙ্গীভূত আনসার সদস্য মোতায়েনের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর রংপুর রেঞ্জ পরিচালক একেএম জিয়াউল আলমের সই করা এক চিঠিতে প্রতিটি জেলা কমান্ড্যান্টকে এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

পত্রে বলা হযয়েছে, রংপুর বিভাগের আট জেলার (রংপুর, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, নীলফামারী, গাইবান্ধা, পঞ্চগড়, দিনাজপুর ও ঠাকুরগাঁও) ৫৮টি উপজেলার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে একজন পিসি, একজন এপিসি ও আটজন আনসারসহ মোট ১০ জন করে সশস্ত্র অঙ্গীভূত আনসার সদস্য মোতায়েন করার জন্য অনুরোধ করা হলো। পত্রে সূত্র হিসেবে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর অতিরিক্ত মহাপরিচালকের ফোন কলের উল্লেখ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার গভীর রাতে দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট থানার ইউএনও ওয়াহিদা খানমের সরকারি বাসভবনের ভেন্টিলেটর কেটে বাসায় ঢুকে ইউএনও ও তার বাবার ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। পরে তাকে রংপুরে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে জরুরি ভিত্তিতে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে আনা হয়।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার পর ইউএনও ওয়াহিদার অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। পরে তাকে হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে ( আইসিইউ) নেওয়া হয়। তার শারীরিক অবস্থা আগের চেয়ে অবস্থা কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

এদিকে ওয়াহিদা খানমের ওপর হামলার ঘটনায় তার ভাই ঘোড়াঘাট থানায় বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন। মামলার পর প্রধান আসামিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here