সুপ্রিম কোর্ট বারে আওয়ামী লীগের সভাপতি বিএনপির সম্পাদক

দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন) ২০২০-২১ সেশনের নির্বাচনে সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন এবং সম্পাদক মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে ১৪ পদের মধ্যে সভাপতি, সহ-সভাপতি (১), সহ-সম্পাদক (২) ও সদস্য (২) নিয়ে মোট ছয়টি পদ পেয়েছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সাদা প্যানেল। আর বিএনপি সমর্থিত নীল প্যানেল সহ-সভাপতি (১), সম্পাদক, কোষাধ্যক্ষ ও পাচঁজন সদস্যসহ মোট আটটি পদে জয় পেয়েছে।

সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের (সাদা প্যানেল) প্রার্থী ছিলেন। তিনি পেয়েছেন তিন হাজার ৩৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন পেয়েছেন দুই হাজার ৪৫৭ ভোট। তিনি ৯১২ ভোট বেশি পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন।

অপরদিকে সম্পাদক ব্যারিস্টার মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল বিএনপি-জামায়াত সমর্থক আইনজীবীদের জাতীয়তাবাদী ঐক্য প্যানেলের (নীল প্যানেল) প্রার্থী ছিলেন। তিনি পেয়েছেন তিন হাজার ৭৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাডভোকেট শাহ মুনজুরুল হক পেয়েছেন দুই হাজার ৮১১ ভোট।

শুক্রাবার (১৩ মার্চ) সকালে ফলাফল ঘোষণা করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিনিয়র আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ।

এছাড়া কোষাধ্যক্ষ পদে ব্যারিস্টার রাগিব রউফ চৌধুরী পেয়েছেন তিন হাজার ৩২৯ ভোট। দুটি সহ-সভাপতি পদের একটিতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মো. মনিরুজ্জমান এবং অন্যটিতে বিএনপি সমর্থিত মো. আব্দুল জব্বার বিজয়ী হয়েছেন।

সহ-সম্পাদকের দুটি পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ব্যারিস্টার মো. ইমতিয়াজ ফারুক ও মোহাম্মদ বাকির উদ্দিন ভূঁইয়া জয় পেয়েছেন।

নীল প্যানেলের সদস্য পদে আইনজীবী মার-ই-উম খন্দকার, মোহাম্মদ মোহসিন কবির, মো. মোহাদ্দেস উল ইসলাম (টুটুল), মোহাম্মদ সাইফ উদ্দিন (রতন), অ্যাডভোকেট আমিরুল ইসলাম (খোকন) জয়ী হয়েছেন।

এবারের নির্বাচনে সভাপতি-সম্পাদকসহ ১৪টি পদের বিপরীতে ৩১ জন প্রার্থী অংশ নিয়েছেন। দুই প্যানেলের বাইরে সভাপতি-সম্পাদকসহ তিন পদে আরো তিন জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। এ নির্বাচনে সাবেক অ্যাটর্নি জেনারেল এএফ হাসান আরিফের নেতৃত্বে ১১৪ সদস্যের নির্বাচন উপ-কমিটি দায়িত্ব পালন করছেন।

দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির (বার অ্যাসোসিয়েশন) ২০২০-২১ সেশনের নির্বাচনের দুই দিনব্যাপী ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) বিকাল ৫টার দিকে। এরপর মধ্য রাত থেকে ভোট গণনা শুরু করে শুক্রাবার সকালে ফলাফল ঘোষণা করেন বারের প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিনিয়র আইনজীবী এ এফ হাসান আরিফ।

দুই দিনে সর্বমোট পাঁচ হাজার ৯৪০ আইনজীবী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

বুধবার (১১ মার্চ) সকাল ১০টা ২০ মিনিটে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে শেষ হয় বিকেল ৫টায়। আর বৃহস্পতিবার (১২ মার্চ) সকালে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে শেষ হয় বিকেল ৫টায়। উভয় দিন দুপুরে এক ঘণ্টার বিরতি ছিল।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির মোট ভোটার সাত হাজার ৭৮১ জন। এর মধ্যে বুধবার (১১ মার্চ) তিন হাজার ৩১ আইনজীবী ভোট দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুই হাজার ৯০৯টি ভোট পড়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট বারের তত্ত্বাবধায়ক নিমেশ চন্দ্র দাশ জাগো নিউজকে জানান, সাত হাজার ৭৮১ ভোটারের জন্য ৬০টি বুথ তৈরি করা হয়েছে। তবে, নারীদের জন্য পৃথক কোনো বুথ তৈরি করা হয়নি। ফলে সব ভোটাররা একই বুথে ভোট দিয়েছেন। এবারের নির্বাচনে ১৪ পদের বিপরীতে মোট প্রার্থী হয়েছিলেন ৩১ জন।

এর আগে ২০১৯-২০ সেশনে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন সরকার সমর্থক সাদা প্যানেলের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী এ এম আমিন উদ্দিন। অপরদিকে, সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন বিএনপি সমর্থক নীল প্যানেলের ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here