৪৭ বছরের রাজনীতির জীবনে এত নির্যাতন দেখিনি : কাদের মির্জা

0
7

আমার কাগজ প্রতিবেদক :

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেছেন, এত নির্যাতন-নিপীড়ন আমি আমার ৪৭ বছরের রাজনীতির জীবনে আর দেখিনি। মঙ্গলবার (২৭ এপ্রিল) রাত ১০টায় তার অনুসারী স্বপন মাহমুদের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে এসে এসব কথা বলেন তিনি।

কাদের মির্জা বলেন, ওবায়দুল কাদের, তার স্ত্রী, এমপি একরাম, নিজাম হাজারীর নির্দেশে এখানকার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা তাণ্ডব চালাচ্ছে। নোয়াখালীর ডিসি, এসপি, এডিশনাল এসপি শামিম, নোয়াখালীর ডিবির ওসি, পিবিআইর মুস্তাফিজ, কোম্পানীগঞ্জের ওসি, ইউএনও, এসি ল্যান্ডসহ সবাই একই স্টাইলে তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে।

গুগল নিউজ-এ ঢাকা পোস্টের সর্বশেষ খবর পেতে ফলো করুন।
যারা দলের জন্য দীর্ঘদিন ধরে ত্যাগ স্বীকার করে যাচ্ছে, আজ পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে। এখানে পুলিশ সন্ত্রাসী অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে, একতরফা তাণ্ডব চালিয়ে যাচ্ছে। যারা আমার ছেলের ওপর হামলা করেছে পুলিশ এখনো একজনকেও গ্রেফতার করেনি। ভিডিও ফুটেজে সব স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে, তাও পুলিশ বলছে তদন্ত চলছে।

কাদের মির্জা আরও বলেন, পুলিশ আমার পৌরসভায় লোক উঠতে দেয় না। গত দুই মাস পৌরসভার দুই লাখ টাকাও ইনকাম হয়নি। অথচ ত্রাণসহ আমার খরচ হয়েছে ৫৫ লাখ টাকা। পুলিশের কারণে কোনো মানুষ উঠতে পারে না। কথায় কথায় পুলিশ তাদের ধরে নিয়ে যায়। আমার পৌরসভার ক্যাম্পাস থেকে পুলিশ কিভাবে মানুষকে নেয়? এ সাহস তাদের কে দিয়েছে? স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় আমাদের পরিচালনা করে। আমার পৌরসভায় এভাবে হস্তক্ষেপ করার অধিকার তাদের কে দিয়েছে?

এ সময় তিনি তার ভাই ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনার মন্ত্রণালয়ের অধিকাংশ কর্মকর্তার আজ আমেরিকা, সিঙ্গাপুরে বাড়ি আছে। এগুলোর সব তথ্য আমার কাছে আছে। মুখ বন্ধ করতে পারবে না। আপনি ওবায়দুল কাদের আমার মৃত্যু নিশ্চিত করতে পারবেন না। যতক্ষণ পর্যন্ত আল্লাহ আমাকে বাঁচায় রাখে।

কাদের মির্জা বলেন, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে ঢাকায় সাংবাদিক সম্মেলন করে আপনাদের সকল তথ্য ফাঁস করে দেব। আমি আজকে স্পষ্ট ভাষায় বলছি, আমার কর্মীদের ওপর এখানে দমন নিপীড়ন বন্ধ করেন। ওবায়দুল কাদের সাহেব এগুলো বন্ধ করেন। এগুলো আপনার কারসাজি।

আপনার কমেন্ট এখানে পোস্ট করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here